অস্তিত্ব সংকটে রাজশাহীর ঐতিহ্যবাহী ঢোপকল || Traditional Dhopkols of Rajshahi

73

পানিবাহিত রোগে এক সময় রাজশাহীতে বহু মানুষ মারা যেতো। ১৯৩৪ সালে শহরে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহের উদ্যোগ নেয়া হলে পুঠিয়ার মহারানী হেমন্ত কুমারী দান করেন ৬৫ হাজার টাকা। এককভাবে এই বিশাল দানে সেই সময়ে গড়ে ওঠা পানি সরবরাহ ব্যবস্থার নাম দেয়া হয় মহারানী হেমন্ত কুমারী ওয়াটার ওয়ার্কস। পাইপলাইনে সরবরাহ করা পানি ধরে রাখার জন্য শহরজুড়ে স্থাপন করা হয় শতাধিক ঢোপকল। এই ঢোপকলগুলোই পরবর্তীতে মহামারীর হাত থেকে বাঁচিয়ে দেয় রাজশাহীবাসীকে। কালের বিবর্তে সেই ঢোপকলগুলো আজ অস্তিত্ব সংকটে। রাস্তা সংস্কারসহ নানাধরনের উন্নয়নমূলক কাজের বাহানায় ভেঙে ফেলা হচ্ছে ঢোপকলগুলো।

 

ঢোপকলের সাথে রাজশাহীবাসীর আবেগ জড়িত রয়েছে। তাই নাগরিক আন্দোলনের মুখে কিছু ঢোপকল সংরক্ষণ করতে বাধ্য হয় সিটি করপোরেশন। আমার আজকের ভিডিও সেই ঐতিহ্যবাহী ঢোপকল নিয়ে।

 

Contact email address for sponsorship, affiliate or other business purpose: [email protected]

Categories People & Blogs
Tags

Leave A Reply

Your email address will not be published.

Skip to toolbar